আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ Jul ২০২৪, ০৪:৫৪ অপরাহ্ন

Logo
এবার বিপিএলের কোয়ালিফাইয়ার নিশ্চিত করল বরিশাল ও কুমিল্লা

এবার বিপিএলের কোয়ালিফাইয়ার নিশ্চিত করল বরিশাল ও কুমিল্লা

 

এবার বিপিএলের কোয়ালিফাইয়ার নিশ্চিত করল বরিশাল ও কুমিল্লা

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

চার-ছক্কার ঝনঝনানি আর রেকর্ড গড়ার মধ্য দিয়ে শেষ হল বিপিএলের সিলেট পর্বের খেলা। একই সাথে কোয়ালিফাইয়ারের খেলাও নিশ্চিত হল সেরা চার দলের। মঙ্গলবার রাতে ইতিহাস গড়ে খুলনাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে কোয়ালিফাই নিশ্চিত করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

এই ম্যাচে বিপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকিয়েও খুলনাকে জেতাতে পারেনি তামিম ইকবাল। খুলনার সাথে বিপিএল থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়েছে আরও তিন দলের। আর পয়েন্ট তালিতায় শীর্ষে থাকা চার দল খেলবে কোয়ালিফাইয়ার।

বিপিএলের প্রথম দল হিসেবে সবার আগে কোয়ালিফাইয়ার নিশ্চিত করেছে মাশরাফি বিন মুর্তজার সিলেট স্ট্রাইকার্স। এরপর বরিশাল আগের ম্যাচে ঢাকার বিপক্ষে হারলেও কুমিল্লার সাথে পয়েন্টে টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে থেকে শেষ চার নিশ্চিত করে ফেলেছে। কুমিল্লার জয়ের মধ্য দিয়ে চতুর্থ দল হিসেবে রংপুর এগিয়ে আছে কোয়ালিফাইয়ারে পথে।

মঙ্গলবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে ২১০ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় খুলনা। জবাবে ১০ বল হাতে রেখেই টপকে গেছে টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। যা বিপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান তারা এটি। এর আগে ২০৭ রান তাড়া করে ঢাকা প্লাটুনকে হারায় খুলনা টাইগার্স।

২০২০ সালের জানুয়ারিতে বিপিএলের সপ্তম আসরে ঢাকা প্লাটুনের ২০৫ রান তাড়া করে জিতেছিল খুলনা। এক আসর পর তাদেরই করা ২১০ রানের সংগ্রহ অনায়াসে ছাড়িয়ে গেল কুমিল্লা।

এই ম্যাচে দুই দল মিলে করেছে ৪২৩ রান। দুই ইনিংস মিলে ৩৪টি চারের সঙ্গে দেখা মিলেছে ২৭টি বিশাল ছক্কার। তামিমের ৯৫ ও হোপের ৯১ রানের সুবাদে দুইশ ছাড়ানো সংগ্রহ পায় খুলনা। কিন্তু চার্লস-রিজওয়ানের ব্যাটে বৃথা যায় তাদের ইনিংস। রান বন্যার ম্যাচে বাকি সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন চার্লস।

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে ৫৬ বলে করেন অপরাজিত ১০৭ রান। ৫ চারের সঙ্গে তিনি ১১টি ছক্কায় সাজান নিজের ইনিংস। তার দুটি সেঞ্চুরিই বিপিএলে করা।

চার্লসের কাজ সহজ হয়ে যায় শুরুতে রিজওয়ানের তাণ্ডবে। পাকিস্তানি কিপার-ব্যাটসম্যান ছিলেন ভিন্ন রুপে। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে ৮ চার ও ৪ ছক্কায় ৩৯ বলে ৭৩ রান করেন তিনি। রিজওয়ান ও চার্লসের ৬৯ বলে ১২২ রানের দ্বিতীয় উইকেট জুটিতেই জয়ের ভিত পায়।

এই জয়ে প্লে-অফের টিকেটও নিশ্চিত হয়ে গেছে ভিক্টোরিয়ান্সের। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে আগেই সেরা চারে জায়গা করে নিয়েছে মাশরাফির সিলেট স্ট্রাইকার্স।

এবার ফরচুন বরিশালকে সঙ্গে নিয়ে প্লে-অফে উঠল কুমিল্লা। দুই দলেরই পয়েন্ট সমান ১২। একই সাথে বিপিএলের গ্রুপ পর্বের খেলা শেষ হওয়ার আগেই বিদায় নিশ্চিত তিন দলের!

১০ ম্যাচ খেভে ৮ জয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে মাশরাফি সিলেট। একটি করে ম্যাচ কম খেলে ১২ পয়েন্ট করে নিয়ে দ্বিতীয় বরিশাল ও তৃতীয় কুমিল্লা। ৮ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ হিসেবে সেরা চারের দৌড়ে এগিয়ে রংপুর রাইডার্স।

বাকি তিন দলের মধ্যে কেবল ঢাকা ১০ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সেরা চারের আশা কিছুটা বাঁচিয়ে রেখেছে। সে ক্ষেত্রে রংপুরকে বাকি চার ম্যাচেই হারতে হবে আর ঢাকাকে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে বড় ব্যবধানে জিতে রংপুরের সমান ১০ পয়েন্ট নিয়ে রান রেটে এগিয়ে থাকলেই সুযোগ থাকবে। এছাড়া ৯টি করে ম্যাচে দুটি করে জয়ে বিপিএলে থেকে বিদায় নিশ্চিত খুলনা ও চট্টগ্রামের।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon