আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ Jul ২০২৪, ০৫:০০ অপরাহ্ন

Logo
দৌলতখানের খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন’র বিরুদ্ধে অপপ্রচার

দৌলতখানের খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন’র বিরুদ্ধে অপপ্রচার

দৌলতখানের খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন’র বিরুদ্ধে অপপ্রচার

 

দৌলতখানের খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন’র বিরুদ্ধে অপপ্রচার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

অনৈতিক সুবিধা না পেয়ে ভোলার দৌলতখানের খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন’র বিরুদ্ধে নানান অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে একটি মহল। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ওই গুদামের নিরাপত্তা প্রহরী মোঃ সাইফুল ইসলাম নিজেই ডিলারদের ন্যায় মাল কেনা-বেঁচা করে আসছে। বিধিবহির্ভূতভাবে তার কাছে মাল বিক্রিতে অস্বীকার করেন ডিও সিপিসি। এত ক্ষিপ্ত হয়ে ওসি এলএসডি আলাউদ্দিনের উপর বেঁকে বসে সাইফুল। তার এক আত্মীয় সংবাদকর্মি হওয়ার সুবাদে আলাউদ্দিনের নামে বিভিন্ন হয়রানিমূলক মিথ্যা অভিযোগ তুলে মুখরোচক সংবাদ প্রচার অব্যাহত রেখেছেন। সাইফুলের বাড়ি খাদ্য গুদামের পাশেই। সে ওখানে প্রায় ৫ বছর যাবত কর্মরত। সরকারী নীতিমালা বিধান আছে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি ৩ বছর একই স্থানে কর্মরত থাকতে পারবে। নিরাপত্তা প্রহরী হয়েও সাইফুল কর্মকর্তাদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে মিথ্যা তথ্য দিয়ে খাদ্য বিভাগের সম্মান ক্ষুণœ করে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, কিছু সংবাদকর্মি ভোলা জেলা প্রশাসকের কাছে দৌলতখানের খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা ওসি এলএসডি’র বিরুদ্ধে ‘ভূয়া ডিও দিয়ে মৎস্য (জেলে) বিভাগের ১১টন চাল পাচার’ করার অভিযোগ করেন। তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেন দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাঠান মোঃ সাইদুজ্জামানকে। তাৎক্ষণিক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে পৌছে ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন’র বিরুদ্ধে অভিযোগের কোন সত্যতা পাননি। তিনি ভোক্তা অধীকার আইনে (মোড়ক) বস্তা বদল করার অপরাধে সাজাহান ডিলারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

সরেজমিনে জানা গেছে, ওসি এলএসডি আলাউদ্দিন ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে মৎস্য ভিজিএফ ২২০০ মে. টন, সামুদ্রিক মৎস্য ৬৪৬ মে. টন, জিআর এবং কাবিখা, ভিজিডি ও খাদ্যবান্ধব ১৫ টাকা কেজি দরের এবং ওমএস ডিলারগণসহ প্রায় ৪০০০ মে. টন চাল ৯টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও একটি পৌরসভার মেয়র এর অনুকুলে সুনামের সাথে বিতরণ করেন।

তিনি ১৬/০১/২০২২ ইং তারিখে দৌলতখান খাদ্যগুদামের এলএসডি ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। সেখানে সরকারী বিধি মোতাবেক খাদ্য পণ্য সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে বিলি-বিতরণসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগদান এবং দুর্যোগ মোকাবেলায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এবং উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তাসহ অন্যান্য দপ্তর সমূহের সাথে সবসময় যোগাযোগের মাধ্যমে সুনামের সহিত সরকারী সকল কর্ম পরিচালনা করে আসছেন।

এলএসডি ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলাউদ্দিন বলেন, সাংবাদিকতা হলো রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ। আর সাংবাদিকরা হলেন জাতির বিবেক। সাংবাদিক বন্ধুরা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করলে সমাজ তথা রাষ্ট্র উপকৃত হবে। কাউকে উদ্দেশ্য করে হয়রানিমূলক সংবাদ পরিবেশন করা আমাদের কাম্য নয়। আমার উপর আনিত অভিযোগ আদৌ সত্য নয়। এখানে লুকোচুরির কিছু নেই। আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ আছেন তারা আমার কাজের দেখভাল করছেন। ঘটনার সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নিবেন।

এ ব্যাপারে ওই গুদামের সহউপখাদ্য পরির্দশক আব্দুস সালাম এবং মোঃ আলী হায়দার ও হারুন অর রসীদ (নিরাপত্তা প্রহরী), খাদ্য গুদামে ৬ জন সাবেক ও বর্তমান সরদার ১। দুলাল মিয়া ২। নান্টু মিয়া ৩। কিরোন মিয়া ৪। মনজুর ইসলাম ৫। মোঃ হোসেন ৬। নোমান হোসেন এবং ১৮ জন শ্রমিক বলেন, স্যারের কর্ম-আচার-ব্যবহারে আমরা মুগ্ধ। তিনি ন্যায় ও সততার সাথে কাজ করেন। উল্লেখ্য, তিনি পটুয়াখালীর বাউফলের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon