আজ শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৬:১৬ পূর্বাহ্ন

Logo
ইউক্রেনে যুদ্ধকালীন নেতৃত্বে বড় পরিবর্তন

ইউক্রেনে যুদ্ধকালীন নেতৃত্বে বড় পরিবর্তন

 

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

মঙ্গলবার ইউক্রেনের ৫টি প্রদেশের গভর্নর এবং অন্যান্য সিনিয়র কর্মকর্তাদের বরখাস্ত করেছে জেলনস্কির সরকার। গত বছর রাশিয়ার আক্রমণের পর এটি হচ্ছে ইউক্রেনের যুদ্ধকালীন নেতৃত্বের সবচেয়ে বড় পরিবর্তন।

মঙ্গলবার পদত্যাগ করা বা বরখাস্ত করা এক ডজনেরও বেশি ইউক্রেনের সিনিয়র কর্মকর্তাদের মধ্যে কিয়েভ, সুমি, ডিনিপ্রোপেট্রোভস্ক, খেরসন এবং জাপোরোজিয়ে অঞ্চলের গভর্নররা ছিলেন। পাঁচটি অঞ্চলই গত বছর ধরে প্রধান যুদ্ধক্ষেত্র হয়েছে, ফলে সেখানকার গভর্নররাও যথেষ্ট জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন।

এদিকে, পদত্যাগ করা কর্মকর্তাদের মধ্যে রয়েছেন একজন উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, একজন ডেপুটি প্রসিকিউটর, প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির অফিসের একজন উপপ্রধান এবং আঞ্চলিক উন্নয়নের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত দুইজন উপমন্ত্রী। তাদের বেশিরভাগের বিরুদ্ধেই দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইউক্রেনের দুর্নীতি এবং নড়বড়ে শাসনের ইতিহাস রয়েছে। বর্তমানে তারা এটি দেখানোর জন্য আন্তর্জাতিক চাপের মধ্যে রয়েছে যে, তারা পশ্চিমা সহায়তায় কোটি কোটি ডলার সুষ্ঠুভাবে ব্যবহার করছে। জেলেনস্কির সহযোগী মাইখাইলো পোডোলিয়াক টুইট করেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট সমাজ দেখেন এবং শোনেন। এবং তিনি সরাসরি জনসাধারণের একটি প্রধান দাবির প্রতি সাড়া দেন- সবার জন্য ন্যায়বিচার।’

১১ মাস আগে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে প্রথম বড় দুর্নীতির কেলেঙ্কারির মধ্যে একটিতে জেনারেটর কেনার চুক্তি থেকে ৪ লাখ ডলার চুরি করার অভিযোগে একজন উপ-পরিকাঠামো মন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করার দু’দিন পর এ রদবদল ঘটল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে যে, উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ভ্যাচেস্লাভ শাপোভালভ, সৈন্যদের সরবরাহের জন্য দায়ী, দুর্নীতির মিথ্যা মিডিয়া অভিযোগের পরে বিশ্বাস বজায় রাখতে পদত্যাগ করেছেন। এটি একটি সংবাদপত্রের প্রতিবেদনের অনুসরণ করে যে, মন্ত্রণালয় সৈন্যদের খাবারের জন্য অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করেছে, যা মন্ত্রণালয় অস্বীকার করেছে।

প্রসিকিউটর অফিস ডেপুটি প্রসিকিউটর জেনারেল ওলেক্সি সিমোনেনকোকে বরখাস্ত করার কোন কারণ দেয়নি, যিনি স্পেনে ছুটি কাটাতে যেয়ে ইউক্রেনীয় মিডিয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন। যদিও জেলেনস্কি তার ভাষণে কোনো কর্মকর্তার নাম উল্লেখ করেননি, তবে তিনি কর্মকর্তাদের বিদেশে ছুটি কাটাতে নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছেন।

জেলেনস্কির অফিসের ডেপুটি চিফ অফ স্টাফ কিরিলো টিমোশেঙ্কো কোনো কারণ ছাড়াই নিজের পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি প্র্রেসিডেন্টের ২০১৯ সালের নির্বাচনী প্রচার চালাতে সাহায্য করেছিলেন এবং সম্প্রতি আঞ্চলিক নীতির তত্ত্বাবধানে ভূমিকা রেখেছিলেন। পরিবর্তনগুলি কিয়েভের যুদ্ধকালীন নেতৃত্বের একটি বিরল পরিবর্তন। সূত্র : রয়টার্স।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon