আজ বৃহস্পতিবার, ১৩ Jun ২০২৪, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন

Logo
শিরোনামঃ
অপরাধীরা কী ধরা-ছোঁয়ার বাইরে থাকবে? সিংহভাগ পুলিশের বিরুদ্ধে দুর্নীতি-অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগ এমপি আনার হত্যা : বেরিয়ে আসছে স্থানীয় আ’লীগ হেভিওয়েট নেতাদের সম্পৃক্ততার খবর জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে হামাস-ইসরায়েল “পরিপূর্ণ যুদ্ধবিরতি” পাস শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ গৌরনদীতে বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থকদের মারধর, বাড়িঘর ভাংচুর-লুটপাট, অগ্নিসংযোগ গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনির হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত ১৩৭ বছর আগে কলকাতায় জাহাজ ডুবিতে ৭৫০ যাত্রীর মৃত্যু ভারতে চলছে জল্পনা-কল্পনা, মোদীর পর কে আসছেন বিজেপির নেতৃত্বে উত্তাল সাগর, ঘূর্ণিঝড়ের শঙ্কা জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী শনিবার
কাঁঠালিয়ায় থাকবে শুধু শেখ হাসিনা লীগ : শাহজাহান ওমর

কাঁঠালিয়ায় থাকবে শুধু শেখ হাসিনা লীগ : শাহজাহান ওমর

কাঁঠালিয়ায় থাকবে শুধু শেখ হাসিনা লীগ : শাহজাহান ওমর

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) শাহজাহান ওমর ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঁঠালিয়া) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন বৈধ হওয়ার পর সোমবার (৪ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে কাঁঠালিয়া উপজেলা সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের নিয়ে সমাবেশ করেন তিনি।

এ সময় সমাবেশে উপস্থিত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে পরিচয় করিয়ে দেন শাহজাহান ওমর। সমাবেশস্থলে শাহজাহান ওমরের বাম পাশে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে নিয়ে চেয়ারে বসে ছিলেন কাঁঠালিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল জলিল মিয়াজী। তার পাশে বসে ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন কবির।

অপরদিকে ডান পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন কাঁঠালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. গোলাম কিবরিয়া সিকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবুল বাসার বাদশা, শৌলজালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মাহমুদ হোসেন রিপন।

সমাবেশে শাহজাহান ওমর বলেন, কাঁঠালিয়ায় আওয়ামী লীগের কোনো গ্রুপিং থাকতে পারবে না। এখানে তরুণ লীগ, কিবরিয়া লীগ, বুড়া লীগ ও বাচ্চা লীগ থাকতে পারবে না। এখানে থাকবে শুধু শেখ হাসিনা লীগ।

তিনি আরও বলেন, আমি বিএনপির দলবলসহ আপনাদের মেহমান। আমাদের বরণ করে নেবেন। আমরা শিক্ষিত লোক, আমাদেরকে সম্মান করলে আপনাদেরকেও আমরা সম্মান করব।

সমাবেশ শেষে তিনি আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। আগামী ১১ ডিসেম্বরের পর আবার দেখা হবে বলে জানান তিনি।

এ সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা ফুলেল শুভেচ্ছা জানাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তারা সুযোগ পাননি। এ নিয়ে তাদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

আগ্নেয়াস্ত্র হাতে নিয়ে বসা কাঁঠালিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল জলিল মিয়াজী বলেন, আগ্নেয়াস্ত্রটি শাহজাহান ওমরের লাইসেন্স করা বৈধ অস্ত্র। তিনি থানার অনুমতি নিয়ে যখন কাঁঠালিয়া আসেন তখন কাঁঠালিয়া থানার ওসিও এখানে উপস্থিত ছিলেন। আমার কাছে অস্ত্রটি রাখতে বলায় আমি আমার হাতে রেখেছি। তার সঙ্গে আরও একটি লাইসেন্সকৃত পিস্তল ছিল।

এ বিষয়ে কাঁঠালিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি কেন ওই সমাবেশে কোনো পুলিশ উপস্থিত ছিল না। পুলিশ আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সেখানে ডিউটিতে ছিল। আইনগতভাবে তিনি অস্ত্র নিয়ে সমাবেশ করতে পারেন না।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও কাঠালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নেছার উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করা হলে কমিশনের বিধিমালা অনুযায়ী তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঝালকাঠি জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ওহিদুজ্জামান মুন্সী বলেন, নির্বাচনে কোনো প্রার্থী সমাবেশে লাইসেন্সকৃত অস্ত্র নিয়ে যেতে পারবে কি না এ বিষয়ে এখনো কোনো নির্দেশনা পাইনি।

ঝালকাঠি জেলা নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটির সদস্য ঝালকাঠির সিনিয়র সহকারী জজ পল্লবেশ কুণ্ডু বলেন, নির্বাচনে কোনো প্রার্থী জনসমাবেশে অস্ত্র নিয়ে যেতে পারবেন না, এতে জনমনে ভীতি সৃষ্টি হয়। তাই প্রার্থী শাহজাহান ওমরকে শোকজ করা হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon