আজ শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:১৮ অপরাহ্ন

Logo
শিরোনামঃ
দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে মুখোমুখি হচ্ছে ‘সরকার-বিরোধী দল’

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে মুখোমুখি হচ্ছে ‘সরকার-বিরোধী দল’

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে মুখোমুখি হচ্ছে ‘সরকার-বিরোধী দল’

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

তফসিল দিলেই হরতাল– দেশ রুপান্তরের শিরোনাম। বিস্তারিত বলা হচ্ছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হলেই হরতালের মতো কঠোর কর্মসূচি দেবে সরকারের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে থাকা বিএনপি। এক দফার যুগপৎ আন্দোলনে বিএনপির সঙ্গে থাকা দলগুলোও এই কর্মসূচি পালন করবে। চলতি মাসে অনুষ্ঠিত দলটির স্থায়ী কমিটির দুটি বৈঠকে এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে বিএনপি সূত্রের দাবি।

এই বিষয়ে সমকালের শিরোনাম- হরতাল অবরোধ কর্মসূচি আসছে প্রস্তুতি নিন। রোডমার্চে অংশ নিয়ে বিএনপি নেতারা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করতে হরতাল-অবরোধসহ সব ধরনের কর্মসূচি পালন করতে নেতাকর্মীকে প্রস্তুত থাকতে হবে।

তারা বলেছেন, বিএনপি হরতাল কর্মসূচি দেয়নি বলে সামনেও আর দেবে না– এমন প্রতিজ্ঞা করেনি। অবৈধ সরকারকে মাটিতে বসিয়ে দেওয়ার জন্য হরতাল-অবরোধ যা যা করা দরকার গণতান্ত্রিক পন্থায় সব ধরনের কর্মসূচি হবে। সেজন্য সবাইকে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। এবারের আন্দোলন ডু অর ডাই।

নিউ এজের শিরোনাম করেছে BNP leaders vow tougher movement। দেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি বৃহস্পতিবার সিলেটে রোডমার্চ থেকে সামনে আরো কঠোর কর্মসূচীর জন্য প্রস্তুত হতে আহবান জানিয়েছে নেতাকর্মীদের।

সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে র‍্যালি শেষে সমাবেশে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি গণতান্ত্রিক পদ্ধতি না মানেন তাহলে পরিস্থিতি সংঘাতের দিকে যেতে পারে, হরতাল-অবরোধের মতো কঠোর কর্মসূচিও আসতে পারে। তিনি সেজন্য দলের সবাইকে প্রস্তুত থাকার আবহান জানান।

পর্যবেক্ষক দল পাঠাবে না ইইউ– গতকালকের পর আজও বেশ কিছু পত্রিকার প্রধান শিরোনাম এটি ঘিরেই। প্রথম আলো লিখেছে ঢাকা সফর করে যাওয়া ইইউর প্রাক্-নির্বাচন পর্যবেক্ষক দলের সুপারিশের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচনের সময় প্রয়োজনীয় শর্তগুলো পূরণ করা হবে কি না, তা এই মূহুর্তে যথেষ্ট স্পষ্ট নয় বলে মনে করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এর আগে ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে পূর্ণাঙ্গ পর্যবেক্ষক দল পাঠায়নি ইইউ।

ইইউ-র পর্যবেক্ষক না আসাকে কেন্দ্র করে বিএনপির প্রতিক্রিয়া নিয়ে মানবজমিনের শিরোনাম ইইউ’র সিদ্ধান্তে প্রমাণ হলো দেশে নির্বাচনের পরিবেশ নেই।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পর্যবেক্ষক না পাঠানোর সিদ্ধান্তে প্রমাণ হলো- এদেশে সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো পরিবেশ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বলেছেন, আমরা সবসময়ই বলে আসছি- আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো নির্বাচনই সুষ্ঠু হবে না। এটা পরীক্ষিত।

অন্যদিকে তাদের আরেকটি শিরোনাম-নেতিবাচক বার্তা মনে করছে না আওয়ামী লীগ। এখানে বলা হচ্ছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পূর্ণাঙ্গ পর্যবেক্ষক দল না পাঠানোর সিদ্ধান্তকে নেতিবাচক বার্তা বলে মনে করছে না আওয়ামী লীগ। তাদের বক্তব্য, নিজেদের সক্ষমতার অভাবে যদি কেউ পূর্ণাঙ্গ দল পাঠাতে না পারে সেটা তাদের বিষয়।

দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। অন্যদিকে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের অসুস্থ হয়ে সিঙ্গাপুরে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এ দু’জনের অনুপস্থিতিতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়নি।

মার্কিন প্রাক-নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল আসছে অক্টোবরে– প্রথম আলোর আরেকটি শিরোনাম এটি।

এখানে বলা হচ্ছে বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্র সরকার নির্বাচন পর্যবেক্ষক পাঠাবে কি না, তা যাচাই করতে একটি প্রতিনিধিদল আসছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় অর্থায়নে ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই) ও ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনস্টিটিউট (এনডিআই) যৌথভাবে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ প্রাক্‌-নির্বাচন সমীক্ষা মিশন (পিইএএম) পরিচালনা করবে। ছয় সদস্যের প্রতিনিধিদল এবং তাদের সহায়তাকারীরা আগামী ৭ থেকে ১৩ অক্টোবর বাংলাদেশ সফর করবেন।

হস্তক্ষেপ নয় যুক্তরাষ্ট্রের লক্ষ্য নির্বাচনে সহায়তা-মার্কিন রাষ্ট্রদূতের এমন মন্তব্য নিয়ে শিরোনাম দৈনিক যুগান্তরের। বিস্তারিত বলা হয়েছে যে বাংলাদেশের নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্র হস্তক্ষেপ করতে চায় না; বরং নির্বাচন যেন অবাধ ও সুষ্ঠু হয় সে বিষয়ে গুরুত্ব দেবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস। গতকাল রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

4 die from electrocution on flodded Mirpur Street– ডেইলি স্টারের শিরোনাম এটি। বলা হচ্ছে রাতের বৃষ্টিতে মিরপুরে রাস্তায় পানিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৪ জনের মৃত্যু। ঘটনাটি ঘটেছে মিরপুর কমার্স কলেজের সামনে রাত ৯টা ৪৫ মিনিটের দিকে। রিপোর্টে বলা হয় গতকাল প্রচন্ড বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা তৈরি হয় রাজধানী ঢাকায়। যানজটে সড়কে নাকাল হয় অসংখ্য মানুষ।

গতকাল রাতে ঢাকার বৃষ্টি নিয়ে দেশ রুপান্তরের শিরোনাম- ডুবন্ত শহরে চরম ভোগান্তি, ৪ মৃত্যু। প্রতিবেদনে বলা হয়, সন্ধ্যার পর থেকে টানা কয়েক ঘণ্টার মুষলধারে বৃষ্টিতে বিভিন্ন এলাকার রাস্তা তলিয়ে যায়। কোথাও কোথাও বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। মাঝরাত পর্যন্ত ওইসব সড়কে থমকে থাকে গাড়ি। অনেকেই যেমন বৃষ্টির কারণে কর্মস্থলেই আটকা পড়েন তেমনি অনেকের অপেক্ষার প্রহর কেটেছে জলমগ্ন সড়কে গাড়িতে বসেই।

এদিকে মিরপুরে সড়কের পাশে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও কয়েকজন। নিহতদের মধ্যে তিনজন একই পরিবারের।

রাজধানীতে দুর্ভোগের রাত– গতকালের বৃষ্টি নিয়ে সমকালের শিরোনাম।

তারা বলছে গত দু’দিন ধরে থেমে থেমে হালকা-মাঝারি বৃষ্টিতে কিছুটা আরামেই দিন কাটছিল রাজধানীবাসীর। গতকাল সারাদিন আকাশ ছিল মেঘলা। থেমে থেমে ঝরেছে বৃষ্টি। কিন্তু সন্ধ্যা নামতেই ঝুম বারিধারা। রাত ৯টা থেকে বাড়তে থাকে তীব্রতা। কিছুক্ষণ পরপর হয় বজ্রপাত। কয়েক ঘণ্টার ভারী বৃষ্টিতে কার্যত অচল হয়ে পড়ে গোটা রাজধানী। কোনো কোনো সড়ক ও অলিগলিতে জমে যায় কোমরসমান পানি। সড়কে জলাবদ্ধতায় মিরপুরে বিদ্যুৎস্পর্শে একই পরিবারের তিনজনসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত এক শিশু হাসপাতালে।

প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট জলাবদ্ধতায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকে ছোট-বড় নানা যানবাহন। ১০ মিনিটের হাঁটার পথ গাড়িতে যেতে লেগেছে দুই ঘণ্টা পর্যন্ত। উপায় ছিল না হাঁটারও। ফলে সীমাহীন ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে নগরবাসীকে।

নতুন মডেলে অর্থনৈতিক সঙ্কট নিরসন চায় আইএমএফ– দৈনিক নয়া দিগন্তের প্রধান শিরোনাম এটি।

বলা হয় বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গতিশীলতা বাড়াতে ব্যাংক, রাজস্ব ও পুঁজিবাজারের মোট ৪৭টি সংস্কার প্রস্তাবের পর এবার নতুন করে অর্থনৈতিক ভবিষ্যদ্বাণী মডেল প্রস্তুত করতে আগ্রহ দেখিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। দাতা সংস্থাটি মনে করে, নতুন মডেলের মাধ্যমে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সঙ্কট নিরসন হবে। এতে দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতিও কমে আসবে। সরকারকে এতে টাকা ছাপিয়ে ঋণ না দেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

ভারতের সঙ্গে পশ্চিমের মিত্রতাকে প্রশ্নে ফেলে দিতে পারে– বণিক বার্তার অন্যতম প্রধান শিরোনাম। ভারত-কানাডা কূটনৈতিক সংকট নিয়ে খবরটি।

এতে বলা হচ্ছে দুই দেশের সম্পর্কের গতিপথ নিয়ে উদ্বিগ্ন মিত্র দেশগুলোও। এ সংকট আরো ঘনীভূত হলে তা ভারত ও পশ্চিমা দেশগুলোর সাম্প্রতিক মিত্রতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলতে পারে বলে আশঙ্কা বিশ্লেষকদের। আবার একই সঙ্গে ইন্দো-প্যাসিফিকের ভূরাজনীতিতে পশ্চিমা কৌশলও বাধাগ্রস্ত হবে বলেও মনে করছেন তারা।

এ বিষয়ে কানাডার নাগরিকদের জন্য ভিসা বন্ধ করলো ভারত – এই শিরোনামে বিবিসি বাংলার খবরটিও পড়তে পারেন।

আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা– দৈনিক সংবাদের প্রধান শিরোনাম। এখানে বলা হয় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছেই। শিশু হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে চাপ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, দেশে ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে ২৫% শিশু রোগী। আক্রান্তের পাশাপাশি ডেঙ্গুতে মোট মৃত্যুর ২১% শিশু। রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এ বছর এত বেশি ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশু ভর্তি হয়েছে, যা এর আগে কখনো দেখা যায়নি।

অন্যদিকে, ঢাকার বাইরের ডেঙ্গু রোগীকে ঢাকা শহরের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য না আনার বা না পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে বাস্তবতা ভিন্ন। ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে প্রতিদিনই ভর্তি হচ্ছেন বাইরের রোগীরা। এদিকে, সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে সারাদেশে ডেঙ্গু শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৮৮৯ জনের। এ নিয়ে চলতি বছর দেশে ডেঙ্গুতে মৃত্যু বেড়ে ৮৭৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

Will 10 crore eggs make any difference? দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের প্রধান শিরোনামে বলা হচ্ছে ১০ কোটি ডিম দেশের বাজারে কোন পার্থক্য কি তৈরি করতে পারবে?

খবরে বলা হয় সরকারের ১০ কোটি ডিম আমদানির সিদ্ধান্ত শুনতে ভালো খবর মনে হতে পারে, কিন্তু এটা আসলে দেশের মাত্র আড়াই দিনের চাহিদা পূরণ করতে পারে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় গত ১৭ই সেপ্টেম্বর ৪ কোটি আর বৃহস্পতিবার আরো ৬ কোটি ডিম আমদানির অনুমতি দেয়। দেশের বাজারে ডিমের দাম বেধে নিয়েও নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় এমন সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

কিন্তু হিসেব বলছে এখনো প্রতিদিন চাহিদা অনুযায়ী ২৫ লাখ ডিম কম উৎপন্ন হচ্ছে। ফলে চাহিদা ও সরবরাহের মধ্যে একটা ফারাক থেকেই যাচ্ছে।

নদী রক্ষা কমিশনের খসড়ার সঙ্গে অন্য কারো তালিকা মিলছে না– বণিক বার্তার প্রধান শিরোনাম।

খবরে বলা হচ্ছে দেশে নদ-নদীর প্রকৃত সংখ্যা নিরূপণে ২০১৯ সালে তালিকা প্রণয়ন শুরু করে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন (এনআরসিসি)। প্রায় চার বছর কাজ শেষে গত ১০ আগস্ট সংস্থাটির ওয়েবসাইটে ৯০৭টি নদ-নদীর খসড়া তালিকা প্রকাশিত হয়। এ সংখ্যা নিয়ে এরই মধ্যে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন নদী গবেষকরা। তারা বলছেন, দেশে নদ-নদী রয়েছে দেড় হাজারের বেশি।

কিন্তু এনআরসিসির তালিকায় তা নেমে এসেছে হাজারেরও নিচে। আবার সরকারি অন্যান্য তালিকার সঙ্গেও এটি অসামঞ্জস্যপূর্ণ। এমন অসামঞ্জস্য নিয়ে এটি প্রকাশিত হলে দেশে নদ-নদীর সংখ্যা নিয়ে জটিলতা আরো বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

ছোট গাড়িতে বড় দুর্ভোগ শহরে-কালের কন্ঠের প্রধান শিরোনাম। ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস আজ, সেটি ঘিরেই বিশেষ প্রতিবেদন ছাপিয়েছে পত্রিকাটি। তারা বলছে ঢাকায় বাস মাত্র ৫% কিন্তু যাত্রী বহন করে ৩০%, অন্যদিকে ব্যক্তিগত বাড়ি ২৯% কিন্তু যাত্রী বহন করে মাত্র ৫%। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণের কথা বলা হলেও বাস্তবে উল্টো পথে হাঁটা হচ্ছে। গণপরিবহনের আশানুরূপ মানোন্নয়ন হচ্ছে না। এতে ব্যক্তিগত গাড়ির প্রতি উৎসাহ দিন দিন বাড়ছে।

ব্যাংকে ঢুকে ২০ লাখ টাকা ছিনতাই! ইত্তেফাকের খবরে বলা হচ্ছে এই ঘটনায় ২ পুলিশসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ২ টার দিকে আইএফআইসি ব্যাংক নয়াপল্টন শাখায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, একজন ব্যবসায়ীর কর্মচারী দুপুরে আইএফআইসি ব্যাংক নয়াপল্টন শাখায় ২০ লাখ টাকা জমা দিতে আসেন। তিনি এসে টাকা জমা দেওয়ার লাইনে দাঁড়ান। এ সময় পুলিশের ইউনিফর্ম পরা দুজন ব্যক্তি তাকে টেনেহিঁচড়ে বাইরে নিয়ে যান। পরে তার কাছে থেকে ২০ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যান তারা। সূত্র : বিবিসি বাংলা

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon