আজ শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন

Logo
শিরোনামঃ
পদ্মা সেতুর সুফল বঞ্চিত পটুয়াখালীর চার উপজেলাবাসী, বাউফলে মানববন্ধন

পদ্মা সেতুর সুফল বঞ্চিত পটুয়াখালীর চার উপজেলাবাসী, বাউফলে মানববন্ধন

পদ্মা সেতুর সুফল বঞ্চিত পটুয়াখালীর চার উপজেলাবাসী, বাউফলে মানববন্ধন

 

পদ্মা সেতুর সুফল বঞ্চিত পটুয়াখালীর চার উপজেলাবাসী, বাউফলে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

সামনে মাহে রমযান ও পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর। কিন্তু দুর্ভোগ কাটেনি পটুয়াখালীর চার উপজেলাবাসীর। পদ্মা সেতু ও লেবুখালী সেতুর সুফল বঞ্চিত তারা। রাজধানী ঢাকা থেকে স্বল্প সময়ে লেবুখালী ও পটুয়াখালী পৌঁছলেও স্বজনদের কাছে পৌঁছতে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। ভোগান্তিতে দিন পেরিয়ে রাত পোহাতে হয়। আবার পকেটও হয় সাবাড়।

বরিশাল ও পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির খামখেয়ালীপনায় দীর্ঘ ৭ মাস রাজধানী ঢাকা থেকে পটুয়াখালীর চার উপজেলায় গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ভোগান্তির শিকার হচ্ছে বাউফল, দশমিনা, গলাচিপা ও দুমকী উপজেলাবাসী। জনৈক এক ব্যক্তি বলেন, ঢাকা থেকে লেবুখালীর পাগলার মোড় সন্ধ্যা রাতে আসার পর ৭শ’ টাকায় ভাড়ার মোটরসাইকেলে বাউফলের বটকাজল গ্রামের ভাঙা ব্রিজ নামক স্থানে পৌঁছতে হয়। এতে করে একদিকে জীবনের ঝুঁকি, অপরদিকে খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষের আর্থিকভাবে ভোগান্তি পোহাতে হয়।

স্বার্থান্বেষী মহলের খামখেয়ালীপনার প্রতিবাদে সোমবার (০৯ মার্চ) সকালে বাউফলের নওমালা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। বাউফল-দশমিনা-গলাচিপা ও দুমকি উপজেলার সাথে সরাসরি ঢাকার গাড়ি পুনরায় চলাচলের দাবীতে বাউফলে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে অংশ নেন এবং বক্তব্য রাখেন সাবেক ইউপি সদস্য মোহাম্মদ মাহবুব, ইউপি সদস্য ফরিদ হোসেন অসীম, নওমালা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক এম এম আবু সাঈদ ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। বক্তারা দক্ষিণ বাংলার রাজনৈতিক অভিভাবক, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী মর্যাদার) ও বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি এবং বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এছাড়াও তারা প্রধানমন্ত্রী এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। অনতিবিলম্বে তারা এই চার উপজেলায় ঢাকার গাড়ি সরাসরি চলাচলের দাবী করেন।

এম এম আবু সাঈদ তার বক্তব্যে বলেন, কিছুদিন আগে ছিল আমাদের স্বপ্ন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার সেই স্বপ্নকে বাস্তবে পরিণত করেছেন, আমাদের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নত ও দুর্ভোগ লাগব করার লক্ষ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণ করে দিয়েছেন, ভাগ্যের পরিহাস স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সুফল আমরা আজও ভোগ করতে পারছি না। মনে হয় পদ্মা সেতু আমাদের অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পরপরই বরিশাল ও পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতি বন্ধ করে দিয়েছে বাউফল-দুমকি-দশমিনা-গলাচিপা রুটের গণপরিবহন।

২০০০ সাল থেকে আমরা গণপরিবহন পেয়েছি, এখন আমরা চারটি উপজেলার প্রায় ১৪ লক্ষ মানুষ ভোগান্তিতে পড়ে গেছি। এখন কেনো গণপরিবহন পাবো না, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। গ্রাম হবে শহর, সরকারের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য প্রথম দরকার একটি উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা। সরকার সে বিষয়টিকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েই বিগত একযুগে যোগাযোগ ব্যবস্থার ক্ষেত্রে তৈরি করেছে নতুন এক মাইলফলক। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে বদলে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত দেশের কাতারে নিয়ে যেতে আধুনিক নিরাপদ এবং পরিবেশবান্ধব পরিবহন ও যোগাযোগ অবকাঠামোর ওপর জোর দিচ্ছে সরকার।

এসব প্রকল্প চালু হলে যোগাযোগ ব্যবস্থায় নতুন এক মাইলফলকে পৌঁছে যাবে বাংলাদেশ। আমরা সরকারের এই উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হতে চাই না। আমরা এই উন্নয়নের ছোঁয়া পেতে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনা ও সড়ক পরিবহন এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের স্যারের কাছে আমাদের প্রাণের দাবি দুমকি-বাউফল-দশমিনা-গলাচিপা গণপরিবহন চাই।

অপরদিকে, বরিশাল-পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির স্বেচ্ছাচারিতায় অতিষ্ঠ হয়ে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ সোমবার (০৬ মার্চ) দশমিনায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon