আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ Jul ২০২৪, ০৫:২৯ অপরাহ্ন

Logo
প্রধানমন্ত্রী একজন জান্নাতি মানুষ, ইমামরা শেখ হাসিনার সৈনিক : কাফীলুদ্দীন সরকার

প্রধানমন্ত্রী একজন জান্নাতি মানুষ, ইমামরা শেখ হাসিনার সৈনিক : কাফীলুদ্দীন সরকার

 

প্রধানমন্ত্রী একজন জান্নাতি মানুষ, ইমামরা শেখ হাসিনার সৈনিক : কাফীলুদ্দীন সরকার

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষ এবং ইসলামের জন্য আশীর্বাদ’ মন্তব্য করে বিশিষ্ট ইসলামী বক্তা ছারছীনা দরবারের অন্যতম প্রধান আলেম মাওলানা মুফতি কাফীলুদ্দীন সরকার সালেহী বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন জান্নাতি মানুষ। ’ সোমবার (৩০ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জের পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী প্রদর্শনী কেন্দ্রে ‘জাতীয় ইমাম সম্মেলন’-এ তিনি এসব কথা বলেন।

ইমাম সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সৌদি আরবের মসজিদ-ই-নববীর ইমাম শায়খ ড. আব্দুল্লাহ বিন আব্দুর রহমান আল বুয়াইজান। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী প্রদর্শনী কেন্দ্রের তিনটি হলে বিপুলসংখ্যক আলেম-ওলামা উপস্থিত ছিলেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানায়, সারাদেশের মসজিদভিত্তিক গণশিক্ষা কার্যক্রমের সঙ্গে রয়েছেন ৮০ হাজার আলেম-ওলামা। তাদের প্রতি মাসে সাড়ে ৫ হাজার থেকে ১১ হাজার টাকা পর্যন্ত সম্মানী ভাতা দিয়ে থাকে সরকার। এই শিক্ষকেরা ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমির প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। তারাই মূলত এ সম্মেলনে যোগ দেন। এর বাইরেও আরও ২০ হাজার ইমাম যোগ দেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গভর্নর ও আমিনবাগ জামে মসজিদের খতিব মুফতি কাফীলুদ্দীন সরকার সালেহী বলেন, ‘নবী-রসুল, গাউস-কুতুব, অলি-আওলিয়াদের পথ ধরে আপনি এই বাংলার জমিনে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ৫৬৪ মডেল মসজিদ প্রতিষ্ঠা করে পৃথিবীর ইতিহাসে শ্রেষ্ঠতম একজন শাসক হিসেবে পৃথিবীর মানচিত্রে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। প্রধানমন্ত্রী (শেখ হাসিনা) এদেশের মানুষের জন্য এবং ইসলামের জন্য আশীর্বাদ।’

শেখ হাসিনার প্রশংসা করে এই আলেম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী, আপনি একজন জান্নাতি মানুষ। আপনি বাংলাদেশে অবিস্মরণীয়, পৃথিবীর একটি শ্রেষ্ঠতম উদাহরণ সৃষ্টি করে রেখেছেন। পৃথিবীর কোনো দেশের কোনো রাষ্ট্রপ্রধান, আজ পর্যন্ত, পৃথিবীর সৃষ্টিলগ্ন থেকে এ পর্যন্ত একটি দেশে একইসঙ্গে ৫৬৪ মডেল মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেছেন, এ রকম কোনো নজির, উদাহরণ নেই।’

ইমামরা শেখ হাসিনার সৈনিক মন্তব্য করে ঢাকা নেছারিয়া কামিল মাদ্রাসার সাবেক এই অধ্যক্ষ প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ‘আপনার ভয় নেই। আপনি এগিয়ে যান। লাখ লাখ ইমাম, মুয়াজ্জিন এবং খতিব আপনার পাশে আছেন। আপনি জানেন, ইমামরা কিন্তু আপনার সৈনিক।’ তিনি বলেন, ‘তাদের (ইমামদের) যেমন দোয়ার হাত আছে, তেমনি সামাজিক পরিবর্তন এবং মানুষের মন-মানসিকতা পরিবর্তনের ভাষাও আছে। কারণ মুসল্লিদের সৎ-উপদেশ দিলে সঙ্গে সঙ্গে তারা গ্রহণ করেন।’

ইসলামিক ফাউন্ডেশন মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে মন্তব্য করে প্রতিষ্ঠানটির গভর্নর কাফীলুদ্দীন সরকার বলেন, ‘আপনার (প্রধানমন্ত্রী) সুচিন্তিত দিকনির্দেশনায় এবং ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খানের সফল নেতৃত্বে ইসলামিক ফাউন্ডেশন নানাবিধ কর্মমুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। বর্তমানে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেশের সর্ববৃহৎ প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইতোমধ্যে মানুষের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছে।’

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন তরিকত ফাউন্ডেশনের সভাপতি সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভারী, মাওলানা ড. মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন সরকার সালেহী ও মাওলানা এহসাসুল হক আল মোজাদ্দেদী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ধর্ম সচিব মো. এ হামিদ জমাদ্দার। প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে পাবনা জেলার সাঁথিয়া উপজেলা মডেল মসজিদ এবং কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারি উপজেলা মডেল মসজিদের ইমাম-মুসল্লি ও বিশিষ্ট নাগরিকবৃন্দের সঙ্গে মত বিনিময় করেন। এদিকে ঠাকুরগাঁও জেলা সংবাদদাতা জানান, ঠাকুরগাঁওয়ে মডেল মসজিদটি উদ্বোধনকালে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মামুন ভূঁইয়া, পৌরসভা মেয়র আঞ্জুমান আরা বেগম বন্যা, ইমলামিক ফাউন্ডেশনের জেলার ফিল্ড অফিসার মো. সালেহ আবদুল্লাহ কাফি, মাষ্টার ট্রেইনার মো. আব্দুর রশিদ, সুপ্রীয় গ্রুপের চেয়ারম্যান বাবলুর রহমান। এছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ মুসল্লিরা উপস্থিত ছিলেন। দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর ঠাকুরগাঁও জেলার মুসল্লিরা পেল এই মডেল মসজিদ। যেখানে অজুর জন্য আলাদা জায়গা এবং শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থায় নামাজ আদায়ের সুবিধা রয়েছে। ঠাকুরগাঁও জেলা মডেল মসজিদটি নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮ কোটি ৪১ লাখ ৪১ হাজার টাকা।

নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তরিকত ফাউন্ডেশনের সভাপতি সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী বলেন, ‘এটা শুধু বঙ্গবন্ধুর নৌকা না। নূহের (আ.) কিস্তি এটা। সেই নৌকা বঙ্গবন্ধুকে আল্লাহ দান করেছেন। এই নৌকা দিয়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। এই নৌকা দিয়েই আজকে আমরা উন্নতি পেয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছি বলেই আজকে ৫৬৪ মডেল মসজিদ পাচ্ছি। দোয়া করবেন, আগামী দিনেও প্রধানমন্ত্রী যেন একইভাবে দেশের খেদমত করতে পারেন। এই নৌকায় ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করবেন।’

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon