আজ বুধবার, ১৭ Jul ২০২৪, ১১:২২ অপরাহ্ন

Logo
ফিলিস্তিনি যোদ্ধাদের প্রতিরোধ আক্রমনে ১৩ জন ইসরায়েলি সেনা নিহত

ফিলিস্তিনি যোদ্ধাদের প্রতিরোধ আক্রমনে ১৩ জন ইসরায়েলি সেনা নিহত

ফিলিস্তিনি যোদ্ধাদের প্রতিরোধ আক্রমনে ১৩ জন ইসরায়েলি সেনা নিহত

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

সীমান্ত অতিক্রম করে ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা ইসরায়েলে হামলা করেছে। তাদের আক্রমণে তিন ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছে। ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগঠন হামাস এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তাদের সশস্ত্র শাখা ইজ আল-দিন আল-কাসাম ব্রিগেড জানিয়েছে, ‘ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা বুধবার সীমান্ত অতিক্রম করে হামলা চালিয়ে তিন ইসরায়েলি সেনাকে হত্যা করেছে।’

একটি সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে ইজ আল-দিন আল-কাসাম বলেছে, গাজার উত্তর-পূর্বে ইরেজের কাছে ইসরায়েলি পদাতিক বাহিনীর সঙ্গে “পয়েন্ট-ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জে” যোদ্ধাদের সংঘর্ষ হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় কমপক্ষে ১৩ জন ইসরায়েলি সেনা নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

নিহত সেনাদের বিস্তারিত পরিচয় এবং পদ-পদবী সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছে টাইমস অব ইসরায়েল। খবরে বলা হয়েছে, হামাসের ট্যাংক-বিধ্বংসী গাইডেড মিসাইলের হামলায় একটি আর্মর্ড ভেহিকেল ধ্বংস হয় এবং তাতে পাঁচ সেনা নিহত ও চারজন আহত হয়। আহতদের মধ্যে এক সেনার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানানো হয়েছে। হতাহত সেনাদের হেলিকপ্টারে করে যুদ্ধের ময়দান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এদিকে, হামাসের পেতে রাখা বোমা বা মাইন বিস্ফোরণে দখলদার সেনাদের একটি ট্যাংক উড়ে যায় এবং সেখানে চার সেনা নিহত হয়।

অপরদিকে, লেবাননের ইরান-সমর্থিত শক্তিশালী সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর হামলায় ইসরায়েলি আরও একটি ড্রোন ভূপাতিত হয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলে ইসরায়েলের ওই ড্রোন ভূপাতিত করে হিজবুল্লাহ। এ নিয়ে চলতি সপ্তাহে দ্বিতীয়বারের মতো ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করল গোষ্ঠীটি। বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) পৃথক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

মূলত ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে ইসরায়েলি আগ্রাসনের মধ্যেই লেবাননের সীমান্তে হিজবুল্লাহর সঙ্গে ইসরায়েলের সংঘর্ষের পরিধি বেড়েই চলেছে এবং এর মধ্যেই ফের ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিত হওয়ার খবর সামনে এলো।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি সপ্তাহে দ্বিতীয়বারের মতো দক্ষিণ লেবাননের ওপর উড্ডয়নরত একটি ইসরায়েলি ড্রোন ধ্বংস করার কথা জানিয়েছে হিজবুল্লাহ। শক্তিশালী সশস্ত্র এই গোষ্ঠীটি বলেছে, তার যোদ্ধারা সারফেস টু এয়ার অর্থাৎ ভূপৃষ্ঠ থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে ইসরায়েলি ওই ড্রোনটি ভূপাতিত করে। এই ঘটনায় অবশ্য ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এখনও কোনও মন্তব্য করেনি।

এর আগে গত রোববার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে প্রথমবারের মতো ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিত করার কথা জানায় হিজবুল্লাহ। সেসময় গোষ্ঠীটি জানায়, ইসরায়েলি ওই ড্রোনটিকে ইসরায়েল-লেবানন সীমান্ত থেকে প্রায় ৫ কিমি (৩ মাইল) দূরে খিয়ামের কাছে মিসাইল দিয়ে আঘাত করা হয় এবং পরে সেটিকে ইসরায়েলি ভূখণ্ডে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

চলতি সপ্তাহে এক প্রতিবেদনে রয়টার্স জানায়, তিন সপ্তাহের বেশি সময় আগে গাজা সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এবং লেবাননের ইরান-সমর্থিত হিজবুল্লাহ গোষ্ঠী প্রতিদিনই গুলি বিনিময় করছে। সীমান্তে এখনও পর্যন্ত ৪৬ জন হিজবুল্লাহ যোদ্ধা নিহত এবং আরও ৪৩ জন আহত হয়েছেন বলে সশস্ত্র এই গোষ্ঠীটি জানিয়েছে।

এছাড়া সংঘর্ষ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েল সীমান্তের ৪২টি পয়েন্টে ৮০টিরও বেশি হামলা চালিয়েছে হিজবুল্লাহ। অন্যদিকে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী বলছে, হিজবুল্লাহর হামলায় তাদের অন্তত সাত সেনা নিহত হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon