আজ রবিবার, ২৩ Jun ২০২৪, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

Logo
বাঁধভাঙা আনন্দে উত্তীর্ণরা

বাঁধভাঙা আনন্দে উত্তীর্ণরা

 

বাঁধভাঙা আনন্দে উত্তীর্ণরা

পল্লী জনপদ ডেস্ক॥

উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষায় বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে এ বছর পাসের হার ৮৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ হাজার ৩৮৬ জন। এই বোর্ডে পাসের হারের দিক থেকে ‌সবার শীর্ষে রয়েছে ভোলা জেলা, আর সর্বনিম্ন পটুয়াখালী জেলা।

বুধবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সা‌ড়ে ১২টার দিকে ফলাফলের এই পরিসংখ্যান ঘোষণা করেন বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অরুন কুমার গাইন। তিনি জানান, এ বছর ব‌রিশাল বোর্ডে পাসের হার ৮৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ। এবার বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের পাসের হার সব থেকে বেশি। এরপর ব্যবসায় শিক্ষা ও মান‌বিক বিভাগের অবস্থান।

ঘোষিত ফলাফলে এবার সবচেয়ে বেশি জিপিএ-৫ পেয়েছে মান‌বিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এ বিভাগে মোট ৩ হাজার ৩৮৯ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এছাড়া ‌বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৩ হাজার ২৬৪ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ৭৩৩ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এদিকে, বরিশাল বোর্ডে এবারে কেউ পাস করেনি এমন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে গড় পাসের হার ৮৫ দশমিক ৯৫ শতাংশ। বুধবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে কম্পিউটারের বোতাম চেপে প্রধানমন্ত্রী এই পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেন।

বেলা সোয়া ১১টার দিকে এই পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। পরে বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানেরা ফলাফলের অনুলিপি প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের চামেলী হলে এই অনুষ্ঠান হয়।

ফলাফলে দেখা গেছে, ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৮৭ দশমিক ৮ শতাংশ, বরিশালে ৮৬ দশমিক ৯ শতাংশ, চট্টগ্রামে ৭৮ দশমিক ৭৬ শতাংশ, কুমিল্লায় ৯০ দশমিক ৭ শতাংশ, দিনাজপুরে ৭৯ দশমিক ১ শতাংশ, রাজশাহীতে ৮১ দশমিক ৫১ শতাংশ, সিলেটে ৮১ দশমিক ৪ শতাংশ, ময়মনসিংহ ৭৭ দশমিক ৩ শতাংশ ও যশোরে ৮৩ দশমিক ৯ শতাংশ। আর মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৯২ দশমিক ৬ শতাংশ ও কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে ৯১ শতাংশ।

২০২২ সালের ৬ নভেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। এবার ৯টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলিয়ে ১১টি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে মোট ১২ লাখ ৩ হাজার ৪০৭ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। ১৩ ডিসেম্বর তত্ত্বীয় পরীক্ষা ও ২২ ডিসেম্বর ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ হয়।

ফল জানা যাবে যেভাবে : প্রার্থীরা অনলাইনে বা মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে তাদের ফলাফল জানতে পারবেন। মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে HSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম ৩ অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে আবার স্পেস দিয়ে পাসের বছর লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

উদাহরণ—HSC DHA 123456 2022 লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে। ফিরতি এসএমএসে জানা যাবে ফলাফল। এ ছাড়া, http://www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইট থেকেও ফলাফল জানা যাবে। রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বরে প্রবেশ করে পৃথক ফলাফল শিট ডাউনলোডও করা যাবে।

সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে অনলাইনের মাধ্যমে প্রাপ্ত ফলাফল ডাউনলোড করে প্রকাশ করার জন্য https://dhakaeducationboard.gov.bd/ ওয়েবসাইটের Result কর্নারে ক্লিক করে প্রতিষ্ঠানের ইআইআইএনের মাধ্যমে ফলাফল ডাউনলোড করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon