আজ রবিবার, ২৩ Jun ২০২৪, ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন

Logo
মেহেন্দিগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন, মামলা

মেহেন্দিগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন, মামলা

 

মেহেন্দিগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন, মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থানা এলাকায় ওমান প্রবাসীর স্ত্রীকে যৌতুক দাবিতে নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনার অভিযোগ এবং মামলার নথিসূত্রে জানা গেছে, মেহেন্দিগঞ্জের কাজিরহাট থানার চর সোনাপুর গ্রামের মোঃ হারুন মৃধার মেয়ে মোসাঃ ডালিয়া’র সাথে একই থানার পূর্ব রতনপুর গ্রামের মোঃ নজরুল চৌকিদারের পুত্র ওমান প্রবাসী মোঃ নাজমুল চৌকিদার’র ইসলামী শরিয়া মোতাবেক ০৯/০৬/২০১৭ ইং তারিখ বিবাহ সম্পন্ন হয়।

জানা গেছে, বিবাহ অনুষ্ঠানে ৫ লাখ টাকা খরচ করে মেয়ের বাবা ঝাকঝমক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে বর নাজমুলের হাতে তুলে দেন কনে ডালিয়াকে। তাদের দাম্পত্য জীবনে ফুটফুটে এক কন্যা সন্তান জন্মগ্রহণ করে। যার নাম নাবিলা ইসলাম। করোনাকালীন সময়ে ওমানে কাজকর্ম কম থাকায় নাজমুল দেশে ফিরে এসে ব্যবসা করার উদ্দেশ্যে স্ত্রীর বাবার বাড়ি থেকে ২ লাখ টাকা আনার জন্য চাপ প্রয়োগ করলে ডালিয়া সুখ-শান্তির আসায় তা এনে দেন।

পরবর্তীতে নাজমুলের ছোট ভাইকে বিদেশে পাঠানোর জন্য পুনরায় ২ লাখ টাকা স্ত্রীর বাবার বাড়ি থেকে আনার জন্য চাপ প্রয়োগ করলে ডালিয়া তা অস্বীকার করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয় স্বামী নাজমুল (৩৪), তার পিতা নজরুল চৌকিদার (৫৮), মাতা : মোসাঃ নাছিমা (৪৫), বোন হালিমা বেগম (২৩)। বিভিন্ন সময়ে ডালিয়াকে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনে গুরুতর আহত ডালিয়াকে বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে ২৪/০৭/২২ ইং তারিখ ভর্তি করে চিকিৎসা করাণো হয়। পর্যায়ক্রমে নেমে আসে ডালিয়ার সুখের সংসারে দুঃখের ছায়া।

ন্যায় বিচারের জন্য এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের কাছে ধর্ণা ধরেন ডালিয়াসহ তার পরিবার। ব্যর্থ হয়ে কাজিরহাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯ (১)/৩০ ধারায় ৪ জনকে আসামী করে নালিশী দায়ের করেন। যার বাদী : মোসাঃ ডালিয়া, এম/পি কেস নং-৩০৭/২০২২ ইং।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাজিরহাট থানার এসআই (নিঃ) মুহাম্মদ আফছার আলী, বিপি-৭৭৯৬০৪৫২৭৯, স্বাক্ষী প্রমাণ শেষে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ৪ নং আসামী হালিমাকে ঘটনার সাথে জড়িত না পেয়ে বাকী ৩ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

সরেজমিনে জানা গেছে, এ ব্যাপারে স্থানীয় কাজিরহাট থানা লতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু রাশেদ মনি শালিস মীমাংসা করে দেন। কিন্তু স্বামীর বাড়ির লোকজন তার উপর অত্যাচার-নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে বলে ডালিয়া অভিযোগ করেন। এছাড়াও স্বামী নাজমুল ওমানে থাকাবস্থায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকের ম্যাসেঞ্জারে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের ভয়ভীতি দেখিয়ে অকথা ভাষায় গালমন্দসহ জীবননাশের হুমকি দিয়ে আসছে। বর্তমানে তিনি কন্যা সন্তান নাবিলাকে নিয়ে নিরাপত্তাহীন ভুগছেন এবং ন্যায় বিচারের জন্য থানার বারিন্দা, অফিস-আদালত এমনকি এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের কাছে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017
Developed By

Shipon